পুর্নাঙ্গ সাইট দেখতে ল্যাপটপ/ডেস্কটপ দিয়ে ভিজিট করার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে

Welcome To Our Commodity Based Business Platform - Powered By Crowdfunding

ক্রাউডফান্ডিং কি ?

ক্রাউডফান্ডিং বলতে, ব্যবসার জন্য বা সামাজিক কাজের জন্য বন্ধু, পরিবার, ভোক্তা এবং পৃথক বিনিয়োগকারীর থেকে ব্যবসার জন্য তহবিল সংগ্রহ করাকে বুঝায়। অথবা, কোন একটি প্রোজেক্ট বাস্তবায়নের উদ্দেশ্যে অল্প অল্প করে অনেকের কাছ থেকে অর্থ সংগ্রহ করার প্রক্রিয়াকে বুঝায়।

Crowdfunding

ক্রাউডফান্ডিং কিভাবে কাজ করে ?

এই পদ্ধতি একটি বৃহৎ জনগোষ্ঠীকে একটি ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে বা সামাজিক উদ্দ্যেশ্যে একত্রিত করে এবং প্রত্যেককে সেই উদ্দেশ্যের আওতায় সুবিধা প্রদান করে।

ক্রাউডফান্ডিং মূলত প্রচলিত মূলধারার ব্যবসার বিপরীত পদ্ধতি। মূলধারার ব্যবসা শুরু করতে চাইলে পূঁজি কালেকশন করতে হয়। এই পূঁজি কালেকশন করতে হলে অবশ্যই ভালো একটি ব্যবসায়ীক পরিকল্পনা, বাজার গবেষণা, এবং অন্যান্য দিক বিবেচনা করতে হয়। তহবিল যোগাড়ের মুল চাবিকাঠি থাকে ব্যাংক, এঞ্জেল ইনভেস্টর, ভেঞ্চার ক্যাপিটাল ফার্ম সহ কয়েকটি সীমিত প্রতিষ্ঠানের উপর। ব্যবসায়ী তার টার্গেট সঠিক ইনভেস্টরের দিকে সঠিক সময়ে স্থির করতে না পারলে টাকা ও সময় দুই ই নষ্ট হবে।

অন্যদিকে ক্রাউডফান্ডিং বিভিন্ন পার্সোনাল নেটওয়ার্ক কে ব্যবহার করে প্লান, রিসোর্স এগুলোকে সাজিয়ে উপস্থাপন করে, সঠিক বিনিয়োগকারীকে খুঁজে নিয়ে ব্যবসার মাধ্যমে ফান্ড রাইজ করে এবং ব্যবসা থেকে প্রাপ্ত সুবিধা বিনিয়োগকারীদের প্রদান করে।

ক্রাউডফান্ডিং এর উপকারিতা ?

সহজেই ব্যবসায়ীক তহবিল সংগ্রহের মাধ্যমে বহুসংখ্যক বিনিয়োগকারীকে একটি নেটওয়ার্ক এ একত্রিত করাই হচ্ছে এর প্রধান সুবিধা। ট্রেডিশনাল পদ্ধতির ফান্ড কালেকশনের চেয়ে ক্রাউডফান্ডিং পদ্ধতির বেশ সুবিধাজনক।

ক্রাউডফান্ডিং এর ধরন

বিভিন্ন ধরনের ক্রাউডফান্ডিং পদ্ধতি রয়েছে যা নির্ভর করে ব্যবসার ধরন, সার্ভিসের ধরন এবং ব্যবসার লক্ষ্য বা উদ্দেশ্যের উপরে। সাধারনত তিন ধরনের ক্রাউডফান্ডিং রয়েছে।

★ ডোনেশন বা দান ভিত্তিক ক্রাউডফান্ডিং
★ রিওয়ার্ড বা পুরস্কার ভিত্তিক ক্রাউডফান্ডিং
★ ইকুইটি ক্রাউডফান্ডিং

রিয়েলট্রেডিং এ ক্রাউডফান্ডিং এর ধরন কি?

রিয়েলট্রেডিং এ ক্রাউডফান্ডিং এর ধরন হচ্ছে ইকুইটি ভিত্তিক। ইকুইটি পদ্ধতিতে বিনিয়োগকারীগন কোম্পানি বা প্রতিষ্ঠানের ঐ ব্যবসায়িক মালিকানায় অংশ নেয়। বিনিয়োগকারী তখন ইকুইটি ওনার হিসাবে গন্য হয়। ইকুইটি ওনার হিসাবে বিনিয়োগকারীরা তাদের বিনিয়োগের উপরে আর্থিক রিটার্ন পায় এবং মুনাফা ও লসের অংশিদার হয়। কিন্তু, রিয়েলট্রেডিং এর প্রধান বিশেষত্ব হচ্ছে এখানে বিনিয়োগকারীরা কোনো ধরনের লসের সম্মুখীন হয় না। এইক্ষেত্রে ব্যবসার সমস্ত লস রিয়েলট্রেডিং বহন করে এবং এই লসের ভার বহন করতে রিয়েলট্রেডিং সক্ষম কারন আমাদের রয়েছে বেশ কয়েকটি অঙ্গপ্রতিষ্ঠান। এইক্ষেত্রে বিনিয়োগকারীগন তাদের মূল টাকা ফেরত পাবে এবং ট্রেডিং শেষে অর্জিত লাভের অংশিদার হবে অথবা ট্রেডিং না হলে কোনো লাভের অংশিদার হবে না।